সময়কাল নিউজ
সময়কাল নিউজ

জবি শিক্ষার্থী রবিনকে বাঁচাতে জনপ্রতি ২০ টাকা চান বন্ধুরা

সময়কাল ডেস্ক : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত রবিন কুমার হালদার। ওই বিভাগের অষ্টম ব্যাচ থেকে সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জনকারী এ শিক্ষার্থী এখন মরণব্যাধি লিউকোমিয়ায় ভুগছেন। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় যা একধরনের ব্লাড ক্যানসার। এই ক্যানসার যে এমন একটি সম্ভাবনাকে নিভু নিভু অবস্থায় নিয়ে যেতে পারে তা কেউ ভাবেননি।

রবিন বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হেমাটোলজি বিভাগে চিকিৎসাধীন আছেন। লকডাউন-পরবর্তী চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যেই ভারতে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সেখানকার চিকিৎসকরা।চিকিৎসক বলেছেন, রবিনের যথাযথ চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাইয়ে নিতে হবে। এতে প্রায় ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন, যা একজন মুদি দোকানি বাবার পক্ষে বহন করা আদৌ সম্ভব নয়।
রবিন কুমার হালদার ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১তম ব্যাচে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অষ্টম ব্যাচে ভর্তি হন। তার রোল নম্বর বি ১৫০৪০৬০১৮।রবিনের বাড়ি রাজশাহীর তানোর উপজেলায়। তার বাবার নাম রতন কুমার হালদার। তার মা গৃহিণী। পরিবারে রবিনের আরেকটি বোন আছে।রবিনের ব্যাচের সহপাঠী জুলিয়া ও পলক তাদের ফেসবুক আইডিতে লিখেছেন, ‘আমাদের বন্ধু রবিন ক্লাসে হাইয়েস্ট সিজিপিএ অর্জনকারী। পড়াশোনা এবং জীবন নিয়ে ও সব সময়ই সিরিয়াস থাকত। এত সিরিয়াস বলে আমরা ওকে আঁতেল বলে খুব ক্ষ্যাপাতাম। একদম নিপাট ভদ্র ছেলে যাকে বলে, ও ঠিক তাই। বন্ধুটা কী দারুণ রান্নাও করত! দীর্ঘ এক বছর ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় বন্ধুদের সাথে ঐভাবে দেখা হয় না। সব ঠিকঠাক চলছিল। হঠাৎ একদিন রবিন ফোন করে জানাল ও মরণব্যাধি লিউকোমিয়ায় আক্রান্ত।’
জুলিয়া ও পলকের মতো রবিনের সব বন্ধু ফেসবুক ফ্রেন্ডলিস্টে থাকা বিত্তবানদের কাছে সামর্থ্য অনুযায়ী তাদের বন্ধুকে বাঁচাতে সাহায্য চেয়েছেন। তারা বলছেন, ‘আমরা প্রত্যেকে যদি ন্যূনতম ২০টি টাকাও রবিনের চিকিৎসার জন্য সাহায্য করি, রবিন বেঁচে যাবে। ১৮ কোটি মানুষের মধ্য থেকে মাত্র ১ লাখ মানুষ যদি ২০ টাকা করে সাহায্য করতে পারি, তাহলেই প্রয়োজনীয় ২০ লাখ টাকার জোগান সম্ভব। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. রাইসুল ইসলাম ঢাকা পোস্টের মাধ্যমে দেশের সব মানুষের কাছে রবিনের জন্য সাহায্য চেয়েছেন।

সাহায্য করতে চাইলে এই নম্বরগুলোতে বিকাশ/রকেট/নগদের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন-  চপল রহমান (বন্ধু) বিকাশ: ০১৯৭৪৮৬৪৮৪২। মাসুম বিল্লাহ (বন্ধু) রকেট: ০১৫২১৫০২১৩৫০। আশিকুজ্জামান (বন্ধু) নগদ: ০১৭৫৯১৩১৯৯১।
সূত্র :Dhakapost

সময়কাল নিউজ