সময়কাল নিউজ
সময়কাল নিউজ

ঢাকা সিলেট মহাসড়কে দুর্ঘটনা ও চাঁদাবাজি রোধসহ শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তৎপরতা বাড়িয়েছে হাইওয়ে পুলিশ

মোঃ আল মামুন খান, সরাইল প্রতিনিধি : ঈদ আসলেই সড়কে যাতায়াতে যাত্রী ও চালকদের ভোগান্তি বেড়ে যায়। তাই আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা ও চাঁদাবাজি রোধসহ শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তৎপরতা বাড়িয়েছে।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে সরজমিনে দেখা গেছে ঢাকা সিলেট মহাসড়কে উপজেলার সদর ইউনিয়ন কুট্টাপাড়া ব্র্যাক অফিসে সামনে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সুখেন্দু বসু, এস আই/ নজরুল ইসলাম, এস আই আরিফ হোসেন খান, কং/ মোমেন, কং/ সাদেক, কং/ পুলক দেব, কং/ মাজেদুল ইসলামসহ এই অভিযান পরিচালনা করছেন।

হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ থেকে বিজয়নগর উপজেলার সাতবর্গ পর্যন্ত ৩৩ কিলোমিটার এবং কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক খাঁটিহাতা বিশ্বরোড মোড় থেকে কসবা উপজেলার কুটি চৌমুহনী কালামোড়া সেতু পর্যন্ত ৪৩ কিলোমিটার এলাকার দায়িত্বে রয়েছে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার পুলিশ।

এর মধ্যে সরাইল নাসিরনগর উপজেলার যাত্রীদের সুবিধার্থে মহাসড়কের সরাইল কুট্টাপাড়া মোড় থেকে খাঁটিহাতা মোড় পর্যন্ত থ্রি-হুইলার চলার জন্য মৌখিক বিশেষ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলার ঢাকা সিলেট মহাসড়ক দিয়ে কয়েক হাজারও মানুষ ও যানবাহন এই সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে। কিন্ত ঈদ এলেই সড়কে ব্যস্ততা বেড়ে যায়।

মহাসড়কে বাড়তি যানবাহনের চাপে সড়ক দুর্ঘটনা, চাঁদাবাজি ও ডাকাতিসহ বিভিন্ন ধরনের নৈরাজ্যের আশঙ্কাও বেড়ে যায়। তাই সড়কে আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রত্যেক ঈদের সামনে পুলিশি তৎপরতা বাড়ায় খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ।

এছাড়া মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচলে সড়ক দুর্ঘটনারোধে গুরুত্ব সহকারে তদারকি করছে পুলিশ। মহাসড়কে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, নিবন্ধনবিহীন গাড়ি চালানো এবং লাইসেন্স ও হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল চালানোসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে নিয়মিত মামলা করা হচ্ছে।

সরাইল খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুখেন্দু বসু বলেন, আসন্ন ঈদ উপলক্ষে সড়কে যেকোনও ধরনের নৈরাজ্য বন্ধ এবং মহাসড়কে যানজটমুক্ত রাখতে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে।

এছাড়া মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচলে হাইকোর্ট ও সরকার এসব যান চলাচলকে নিষিদ্ধআরোপ ঘোষণা করেছেন। আমরাও এসব যানবাহনের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি।

সময়কাল নিউজ