সময়কাল নিউজ
সময়কাল নিউজ

বদলে গেল চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের ভেন্যু

সময়কাল ডেস্ক :চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের ভেন্যুতে আসছে পরিবর্তন। তুরস্কের ইস্তাম্বুলের পরিবর্তে পর্তুগালের পোর্তোতে বসতে যাচ্ছে ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের চূড়ান্ত লড়াই। ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে অল-ইংলিশ ফাইনাল আয়োজনের প্রস্তাব থাকলেও লন্ডন প্রশাসনের কোয়ারেন্টাইন জটিলতা এড়াতে পোর্তোকেই বেছে নিয়েছে উয়েফা। তবে ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে না ভেবে মাঠের পারফরম্যান্সেই মনোযোগী ম্যানসিটি আর চেলসির দুই কোচ।

সুস্থ পৃথিবীতে বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের বিনোদিত করে আসছে শুরু থেকেই, তবে করোনা জর্জরিত ২০২০ সালে বড় স্বস্তির খোরাক হয়ে এসেছিল গতবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল। এখনও পুরোপুরি সুস্থ হয়নি ধরিত্রী, তবে নিউ নরমালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনেকটাই স্বাভাবিক দর্শকবিহীন ফুটবল কার্যক্রম। চোখের পলকেই একটা বছর পেরিয়ে আবারও দোরগোড়ায় আরও একটা ইউসিএল ফাইনাল।
আগের বারও কোভিডের কারণে ইস্তাম্বুল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছিল ফাইনাল। আবারও একই খড়গ নেমে এসেছে তুরস্কের ওপর। ইংল্যান্ড সরকারের লাল তালিকায় তুরস্ক। তাই কোয়ারেন্টাইন জটিলতা এড়াতে ভেন্যু পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নেয় উয়েফা।

অল ইংলিশ ফাইনালটা লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিল ইংল্যান্ড সরকার। তবে গণমাধ্যম ও সাপোর্টিং স্টাফদের ভ্রমণ জটিলতায় সেটাও প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। আর তাতেই আরও একবার কপাল খুলেছে পর্তুগালের। কোভিডকালে ইংরেজদের ভ্রমণ তালিকায় সবুজ ঘরেই আছে পর্তুগিজরা। তাই পছন্দের তালিকায় পোর্তোর এস্তাদিও দো দ্রাগাও আছে সবার ওপরে। হাতে খুব বেশি সময় না থাকলেও এখনও চূড়ান্ত হয়নি রণক্ষেত্র। তবে তা নিয়ে মোটেও চিন্তিত নয় কোনো কোচই।
পেপ গার্দিওলা বলেন, ‘আমি এ ব্যাপারে নিশ্চিত যে উয়েফা সবার ভালো হয় এমন একটা সিদ্ধান্তই নেবে। যদি ইস্তাম্বুল যেতে হয়, আমরা সানন্দে যাব। তবে আমার মনে হয় কোভিডের পরিস্থিতিই এখন সবকিছুর সঙ্গে জড়িয়ে আছে। কর্তৃপক্ষ যদি সবকিছু বিবেচনা করে ইংল্যান্ডে কিংবা অন্য যে কোনো ভেন্যুতে ম্যাচ সরিয়ে নেয়, তবে আমরা প্লেন বা বাসে করে সেখানেই পৌঁছে যাব।’
চেলসি কোচ থমাস টাচেল জানান, ‘আমাদের কোনো বিশেষ পছন্দ নেই। আমাদের কাছে ম্যাচটা হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ। এবং আমি বাজি ধরে বলতে পারি ম্যাচটা খেলার জন্য যেখানে যেতে হোক না কেন, আমরা সেখানেই যাব। ভালো ব্যাপার হচ্ছে উয়েফার এই সিদ্ধান্ত প্রক্রিয়ার মধ্যে আমাদের ক্লাব কর্মকর্তাও আছেন, সুতরাং ভেন্যুর ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এলেই আমরা জানতে পারব। এরপরই আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।’

সময়কাল নিউজ